- রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪

| আষাঢ় ৩০ ১৪৩১ -

Tokyo Bangla News || টোকিও বাংলা নিউজ

বাড়িতে ব্যবহারের রোবট তৈরি করল প্রিফারেড রোবোটিক্স কোম্পানি

টিবিএন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:৫৯, ২৭ মে ২০২৩

বাড়িতে ব্যবহারের রোবট তৈরি করল প্রিফারেড রোবোটিক্স কোম্পানি

ছবি:কিয়োদো নিউজ

বাড়িতে ব্যবহারের জন্য একটি রোবট তৈরি করেছে টোকিও-ভিত্তিক প্রিফারেড রোবোটিক্স ইনকর্পোরেটেড।রোবোটিক্স কোম্পানিটি জানায় বাড়িতে কাজের জন্য কে মৌখিক আদেশ দিলে বিভিন্ন বস্তু সরবরাহ করতে সক্ষম রোবটটি যেমন খাবার ঘরের টেবিলে রাখা,মশলা আনা বা সোফায় বই রাখা এবং পানি এনে দেওয়া ইত্যাদি।

টোকিও-ভিত্তিক প্রিফারেড রোবোটিক্স ইনকর্পোরেটেড দ্বারা তৈরি "কাচাকা" নামক আয়তক্ষেত্রাকার রোবটটি কাস্টার চাকার সাথে লাগানো একটি বিশেষভাবে ডিজাইন করা টেবিলের নীচে সংযুক্ত।

রোবোটিক্স কোম্পানিটি জানায়,ডিভাইসটি একটি রোবট ভ্যাকুয়াম ক্লিনারের আকারের।একটি বস্তুকে বাড়ির একটি নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে দিতে পারে। ডিভাইসটিতে একটি অ্যাপে প্রাক-নিবন্ধন করা আছে একবার বস্তুটিকে টেবিলে রাখা এবং নিয়ে আসার। আদেশ দেওয়া হলে  মালিকের কাছে বই এবং ম্যাগাজিনও আনতে পারে রোবোটটি।এছাড়া প্রতিদিন জিনিসপত্র সরবরাহ করার জন্য রোবোটটিতে একটি নির্দিষ্ট সময় সেট করা যায় বলে জানায় রোবোটিক্স কোম্পানিটি।

রোবোটটি সেন্সর এবং একটি ক্যামেরা দিয়ে সজ্জিত।এআই প্রযুক্তি ক্যামেরার ছবি বিশ্লেষণ করে রুমে থাকা লোকজন বা আসবাবপত্র খুঁজে বের করে এবং রোবটের জন্য সবচেয়ে ভালো পথ নির্ধারণ করে  বলে জানায় রোবোটিক্স কোম্পানিটি।

কোম্পানিটি আরও জানায়,স্বয়ংক্রিয় রোবটগুলি কারখানাগুলিতে আরও ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয় কারণ কারখানার আশেপাশের পরিবেশ সহজেই নিয়ন্ত্রিত হয়।তবে রোবটটিকে বাড়িতে, এমনকি বিভিন্ন পরিবেশেও নিরাপদে ব্যবহার করা যাবে বলে জানায় সংস্থাটি।

এছাড়া ১০ কিলোগ্রাম ওজনের রোবটটি ২০ কেজি পর্যন্ত বহন করতে পারে। এটি প্রতি সেকেন্ডে ৮০ সেন্টিমিটারের মতো দ্রুত গতিতে চলে।রোবোটিক্স আশা করছে রোবট ব্যবহার করলে বাড়ির কাজে ব্যয় করা সময়কে কমিয়ে দেবে।রোবটটি একটি ডাবল- বা ট্রিপল-শেল্ফ টেবিলের সাথে সংযুক্ত এবং এর দাম ২৫১,৮০০ ইয়েন ($১,৮০০) এছাড়া রোবটটি ব্যবহারকারীদের রোবট অ্যাপের জন্য মাসে ৯৮০ ইয়েন দিতে হবে বলে জানায় রোবোটিক্স কোম্পানিটি।

উল্লেখ্য,২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত রোবোটিক্স  ফার্মটির লক্ষ্য রোবট সরবরাহ করা যা এআই প্রযুক্তি এবং সুপার কম্পিউটারের মাধ্যমে মানুষকে সহায়তা করবে। 
 

আর সি