- বুধবার ১৯ জুন ২০২৪

| আষাঢ় ৫ ১৪৩১ -

Tokyo Bangla News || টোকিও বাংলা নিউজ
বাংলাদেশি পাঁচ প্রকোশলীকে স্বাগত জানালো মিইয়াযাকি বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশি পাঁচ প্রকোশলীকে স্বাগত জানালো মিইয়াযাকি বিশ্ববিদ্যালয়

মিইয়াযাকি শহর এবং মিইয়াযাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রকল্পের অংশ হিসেবে এই বছর পাঁচ জন আইটি প্রকৌশলী জাপানে এসেছেন। এ উপলক্ষ্যে ১৬ই এপ্রিল মিইয়াযাকি শহরে একটি স্বাগত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ২৩ থেকে ২৭ বছর বয়সী পাঁচ জন আইটি প্রকৌশলী বাংলাদেশ থেকে জাপানে আসেন এবং মিইয়াযাকি শহর কার্যালয়ে আয়োজিত একটি স্বাগত অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত শহরের মেয়র কিয়োইয়ামা তোমোনোরি উৎসাহ প্রদান করে বলেন, "আমি নিশ্চিত যে আপনি আপনার নতুন জীবনধারার কারণে অনেক কষ্টের সম্মুখীন হবেন, তবে আমরা আপনাকে সমর্থন করার জন্য আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করব, তাই অনুগ্রহ করে আপনার যথাসাধ্য চেষ্টা করুন।" মিইয়াযাকি শহর গত সাত বছর ধরে মিইয়াযাকি বিশ্ববিদ্যালয় ও জাইকা (জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা এজেন্সি) এবং অন্যান্যদের সাথে "বি-জেট" নামক একটি প্রকল্পে কাজ করছে। এই প্রকল্পের আওতায়, জাপানে কাজ করতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি আইটি প্রকৌশলীরা জাপানে আসার আগে প্রায় পাঁচ মাস স্থানীয়ভাবে জাপানি ভাষা শিখে থাকেন। এরপর, কর্মজীবনে প্রবেশ করার আগে আরও তিন মাস মিইয়াযাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি ছাত্রাবাসে অবস্থানকালীন শহরের কোম্পানিতে কাজ করার পাশাপাশি জাপানি রীতিনীতি সম্পর্কে অভিজ্ঞতা লাভ করেন। শহর কর্তৃপক্ষের তথ্যানুযায়ী, এই প্রকল্পের আওতায় গত বছর শহরটির বিভিন্ন কোম্পানিতে মোট ৫৩ জন চাকরি পেয়েছেন। বাংলাদেশ রাষ্ট্রীয়ভাবে ডিজিটাল প্রযুক্তিকে উৎসাহিত করছে, এবং দেশটিতে প্রচুর আইটি প্রতিভা থাকা সত্বেও সুযোগের অপ্রতুলতা রয়েছে। অন্যদিকে মিইয়াযাকি শহরে আইটি প্রতিভার ঘাটতি রয়েছে। ফলে উভয়ের পারস্পরিক স্বার্থ একইদিকে কাজ করে। ২৫ বছর বয়সী আগত আইটি প্রকৌশলীদের একজন বলেন, "আমি জাপানে বিভিন্ন প্রযুক্তি শিখতে চাই এবং একজন ভালো সফটওয়্যার প্রকৌশলী হতে চাই।"