- রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

| ফাল্গুন ১৩ ১৪৩০ -

Tokyo Bangla News || টোকিও বাংলা নিউজ

অভিবাসন কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের অভিযুক্ত করার দাবি জানালেন মৃত উইশমার পরিবার

টিবিএন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮:৪৬, ১২ জুলাই ২০২৩

অভিবাসন কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের অভিযুক্ত করার দাবি জানালেন মৃত উইশমার পরিবার

ছবি:দ্যা মাইনিচি

নাগোয়া অভিবাসন কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের অভিযুক্ত করার দাবি জানিয়েছে মৃত শ্রীলঙ্কান উইশমা সান্দামালির পরিবার।আজ বুধবার  প্রসিকিউটরদের এই অনুরোধ করেছে উইশমার পরিবার। 

২০২১ সালের ৬ মার্চ নাগোয়া রিজিওনাল ইমিগ্রেশন সার্ভিসেস ব্যুরোতে চিকিৎসার অভাবে মারা যান উইশমা।উইশমার পরিবার তাকে অবৈধভাবে আটক করা এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা না দেওয়ার অভিযোগ করেন।মার্চ মাসে তার প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীর দুই দিন আগে নাগোয়া জেলা আদালতে মামলাটি দায়ের করেন উইশমা সান্দামালির পরিবার।

এরআগে ১৭ জুন প্রসিকিউটর অফিস উইশমার পরিবারকে জানিয়েছিল, খাবার বা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিতে ব্যর্থ হয়েছে এমন দাবি স্বীকার করেনি অভিবাসন কর্তৃপক্ষ।ফলস্বরূপ, অভিবাসন কেন্দ্রের  প্রধানসহ তৎকালীন ১৩ জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ বাদ দেওয়া হয়।

নাগোয়া জেলা পাবলিকের কাছে অনুরোধ জমা দেওয়ার পর উইশমার বোন ওয়ায়োমি সাংবাদিকদের বলেন, "আমি প্রসিকিউটরদের বলেছিলাম একটি সুষ্ঠু তদন্ত করতে এবং পেশাগত অবহেলার অভিযোগে (কর্মকর্তাদের) অভিযুক্ত করতে।অবহেলার ফলে মৃত্যু হয়েছে আমার বোনের,এমনটি যাতে এটি আর কখনও না ঘটে এই কথাও বলেন উইশমার বোন ওয়ায়োমি।

প্রসিকিউটরদের কাছে উপস্থাপিত নথিতে বলা হয়েছে, উইশমার সঠিক চিকিৎসা করা কর্তব্য ছিল অভিবাসন কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের।পাশাপাশি যথাযথ চিকিৎসা পেলে উইশমা মারা যেত না বলে উল্লেখ করা হয়েছে নথিতে।

উল্লেখ্য,উইশমা জাপানি ভাষা অধ্যয়নের জন্য ২০১৭ সালে স্টুডেন্ট ভিসায় জাপানে এসেছিলেন কিন্তু অভিবাসন কর্তৃপক্ষের দ্বারা তার আশ্রয়ের আবেদন প্রত্যাখ্যান করায় তার ভিসা শেষ হয়ে যায়।

আর সি